ছয় মাসে সাড়ে তিন হাজার ইউনিট রক্ত সংগ্রহ লকডাউনে

করোনা অতিমারি। লকডাউন। তা সত্বেও রক্তের জোগান অব্যাহত রাখতে নিরলস প্রচেষ্টা নিয়ে চলেছে দুর্গাপুর মহকুমা ভলান্টারি ব্লাড ডোনার্স ফোরাম। স্বাস্থ্যবিধি মেনে পর পর শিবির আয়োজনে মুখ্য ভূমিকা নিয়ে চলেছে ফোরাম।

লকডাউন শুরু হওয়ার পরে প্রথম শিবির হয়েছিল ২৭ মার্চ। ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মোট ১৫৩ টি শিবিরের আয়োজন করা হয়েছে। রক্ত সংগ্রহ হয়েছে মোট ৩৫১৩ ইউনিট।

দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতাল ব্লাড সেন্টারের সাহায্যে ৮৬ টি শিবির থেকে মোট সংগ্রহ হয় ১৯৯৪ ইউনিট। আসানসোল জেলা হাসপাতাল ব্লাড সেন্টারের সাহায্যে ২৫ টি শিবিরে মোট সংগ্রহের পরিমাণ ৭৯৫ ইউনিট। পুরুলিয়া জেলা হাসপাতাল ব্লাড সেন্টারের সাহায্যে ২ টি শিবির থেকে সংগ্রহ করা হয় ১৪৭ ইউনিট এবং দুর্গাপুর ইস্পাত হাসপাতাল ব্লাড সেন্টারের সাহায্যে একটি শিবির থেকে মোট ২০ ইউনিট রক্ত সংগ্রহ করা হয়।

এছাড়াও বেসরকারি হাসপাতাল মিশন হাসপাতাল ব্লাড সেন্টারের সাহায্যে ১৯ টি শিবির থেকে ২৫৮ ইউনিট, বিবেকানন্দ হাসপাতাল ব্লাড সেন্টারের সাহায্যে ৮ টি শিবির থেকে ১২৮ ইউনিট, হেলথ ওয়ার্ল্ড হাসপাতাল ব্লাড সেন্টারের সাহায্যে ৫ শিবির থেকে ৮৬ ইউনিট, আইকিউ সিটি হাসপাতাল ব্লাড সেন্টারের সাহায্যে ৬ টি শিবির থেকে ৫৫ ইউনিট এবং গৌরী দেবী হাসপাতাল ব্লাড সেন্টারের সাহায্যে একটি শিবির থেকে মোট ৪০ ইউনিট রক্ত সংগ্রহ করা হয়।

ফোরামের সাধারণ সম্পাদক কবি ঘোষ বলেন, ‘‘রাজ্য প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, বিধায়কবৃন্দ, বিভিন্ন ক্লাব, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন, রাজনৈতিক দল, অটো চালক বন্ধুদের সংগঠন ‘আমাদের পরিবহণ সংস্থা’ সহ অসংখ্য সাধারণ মানুষের অকুণ্ঠ সাহায্য সহযোগিতা আমরা পেয়েছি। মেডিকেল টিমের সাহায্য ভোলার নয়। এই সময়ে বহু নতুন নতুন রক্তদাতাদের আমরা পেয়েছি। স্বেচ্ছাসেবক বন্ধুদের নিরলস পরিশ্রমে আমরা অভিভূত। সবাইকে আমরা কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।’’

aamarvlog

শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। আমার ব্লগ- হাবি জাবি নয়। যোগাযোগ- ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপ- 9434312482 ই-মেইল- [email protected]

Feedback is highly appreciated...

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: