দুর্গাপুরের কালীমন্দিরে আলপনা আঁকলেন যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত কয়েদি মহম্মদ নাসির

একদিকে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির নিদর্শন। অন্যদিকে, খুনের দায়ে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত কয়েদিও সমাজে ব্রাত্য নয়। শনিবার ১৪ নভেম্বর সমাজের উদ্দেশ্যে দুটি বার্তাই দিলেন দুর্গাপুরের রবীন্দ্রপল্লির কালী মন্দির কমিটি।

২০০৪ সালে স্ত্রীকে খুনের অভিযোগে গ্রেফতার হন মেটিয়াবুরুজের মহম্মদ নাসির। ২০০৬ সালে যাবজ্জীবন সাজা হয় তাঁর। এখন তিনি রয়েছেন দুর্গাপুর মুক্ত উপ সংশোধনাগারে। এদিন তিনি রবীন্দ্রপল্লীর ওই কালী মন্দিরে আলপনা আঁকার কাজ করলেন তিনি।

বাড়িতে পরিবারের সবাই রয়েছেন। একমাত্র মেয়ে থাকে বিহারে মামা বাড়িতে। দীর্ঘদিন ধরে সংশোধনাগারের রুটিনে অভ্যস্ত মন আর উতলা হয় না বাড়ির জন্য। তিনি চান, তাঁর হাতের কাজের মাধ্যমেই সবাই তাঁকে মনে রাখুন। তাঁর অতীতকে নয়।

রবীন্দ্রপল্লী কালী মন্দিরের সেবাইত দীপ মুখোপাধ্যায় বলেন, আমরা সর্বধর্ম সমন্বয়ে বিশ্বাস করি। আমরা শুধু জানি মানব ধর্মের কথা। সাম্প্রদায়িক হানাহানি বন্ধ হোক। নাসির তাঁর শিল্পী মন নিয়ে এগিয়ে চলুক।

aamarvlog

শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। আমার ব্লগ- হাবি জাবি নয়। যোগাযোগ- ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপ- 9434312482 ই-মেইল- [email protected]

Feedback is highly appreciated...

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: