pix of chief minister mamata bannerjee

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করে রাখুন বিভিন্ন আপডেট পাওয়ার জন্য।

ইনসেনটিভের বদলে অনারিয়াম দিতে হবে।  পশ্চিমবঙ্গ প্রাণী সম্পদ বিকাশ কর্মী ইউনিয়নের (প্রাণীসেবী, প্রাণীমিত্রা, প্রাণীবন্ধু, এআই ওয়ার্কার) পক্ষ থেকে দীর্ঘদিন ধরে যে দাবিগুলি নিয়ে আন্দোলন চলছে, তার মধ্যে অন্যতম প্রধান দাবি এটাই। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সোমবার ২৩ নভেম্বর খাতড়ার জনসভা থেকে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দিলেন আমলাদের।

দেখুন ভিডিও

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মানু গৌতম জানিয়েছেন, তাঁরা সংখ্যায় প্রায় ১৪ হাজার জন রয়েছেন। তাঁদের মাত্র ১৫০০ টাকা ইনসেনটিভ দেওয়া হয়। ৪০ টি প্রজনন করালে ৮০০ পয়েন্ট হলে তবেই এই ইনসেনটিভ মেলে। কিন্তু বেশি কাজ করলে পুরস্কারের ব্যবস্থা নেই বলে অভিযোগ তাঁর।

সংগঠনের তরফে প্রধান পাঁচদফা দাবি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে আন্দোলন চলছে। নবান্নে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন সংগঠনের প্রতিনিধিরা। জেলায় জেলায় মন্ত্রী, বিধায়কদের কাছে স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছে। তাঁদের প্রধান দাবিগুলি হল, ১) ইনসেনটিভের বদলে মাসে দশ হাজার টাকা সাম্মানিক ভাতা দিতে হবে। ২) স্থায়ীকরণ করতে হবে। ৩) ৬৫ বছর বয়স পর্যন্ত কাজের নিশ্চয়তা দিতে হবে। ৪) কর্মরত অবস্থায় মৃত্যুতে পরিবারের একজনকে একই পদে নিয়োগ করতে হবে। ৫) দশ লক্ষ টাকা জীবন বীমা দিতে হবে।

সোমবার খাতড়ায় মুখ্যমন্ত্রীর জনসভায় পৌঁছে যান সংগঠনের প্রতিনিধিরা। সেখানে তাঁরা তাঁদের দাবির কথা তোলেন। মুখ্যমন্ত্রী সব শুনে মঞ্চেই সচিবদের সঙ্গে কথা বলে নেন। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “মুখ্যসচিব, স্বরাস্ট্রসচিব, অর্থসচিবকে বলছি, আমরা যেটা করতে পারি, ইনসেনটিভ না দিয়ে ওদের যা হোক একটা কিছু মাসিক মাইনের ব্যবস্থা করে দাও। এখনই হয়তো বেশি দিতে পারব না। এখন কম করে দেব। পরে দেখে দেব। কারণ, এখন কোভিডের বিরুদ্ধে লড়তে গিয়ে হাতে টাকা নেই।”

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মানু গৌতম বলেন, “দিদির প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। আমাদের দীর্ঘদিনের সমস্যার কিছুটা হলেও সুরাহা হবে।”

By aamarvlog

শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। আমার ব্লগ- হাবি জাবি নয়। যোগাযোগ- ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপ- 9434312482 ই-মেইল- [email protected]

Feedback is highly appreciated...

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: