শেষ পর্যন্ত মৃত্যুর কোলেই ঢলে পড়ল নিশানহাটের সদ্যজাত শিশুকন্যা

pix of mamc modern addআমাদের ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করে রাখুন বিভিন্ন আপডেট পাওয়ার জন্য।

দুর্গাপুরঃ নিশানহাটের বাবা-মায়ের পরিত্যক্ত সদ্যজাত শিশুকন্যা বৃহস্পতিবার গভীর রাতে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ল। শনিবার দেহের ময়নাতদন্ত হবে আসানসোল জেলা হাসপাতালে।

বুধবার ভোর সাড়ে ৩ টা নাগাদ দুর্গাপুরের নিশানহাট বস্তির ঝুপড়িতে জন্ম নেয় এক শিশুকন্যা। কিছুক্ষণের মধ্যেই বস্তাবন্দী হয়ে তার ঠাঁই হয় পাশের মাঠের এক গর্তে। এই অমানবিক ঘটনায় হতবাক সবাই। পরিবারের কর্তা রিক্সা চালান। সন্ধ্যায় ভরপেট মদ খেয়ে ঘরে ঢোকেন। আগে তিনটি সন্তানের দুটি মেয়ে। বুধবার ভোরে তাঁর স্ত্রী জন্ম দেন চতুর্থ সন্তানের।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, কন্যা সন্তান হওয়ায় সেই সদ্যজাতকে স্বাস্থ্যকেন্দ্রের পাশের মাঠের গর্তে ফেলে দিয়ে আসেন দম্পতি। প্রবল ঠান্ডার মধ্যে কয়েকঘন্টা পড়েছিল সদ্যজাত। বৃহস্পতিবার সকালে বাচ্চারা খেলতে গিয়ে কান্নার আওয়াজ পেয়ে গর্ত থেকে তাকে বের করে। এরপরেই পাড়ার বাসিন্দারা ধরে ফেলেন সবটা।

ওই দম্পতি প্রথমে ঘটনার কথা স্বীকার করতে চায়নি। পরে পুলিশ এলে ভয় পেয়ে সব মেনে নেয়। সবার কাছে হাতজোড় করে ক্ষমা চেয়ে নেন সদ্যজাতের বাবা। মা ও সদ্যজাতকে পাঠানো হয় দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে। কিন্তু এত কষ্ট সহ্য করতে পারেনি শিশুটি। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে মারা যায় সে।

আরও পড়ুন- পর পর মেয়ে হওয়ায় সদ্যজাতকে ফেলে দিলেন মা, চাঞ্চল্য দুর্গাপুরে 

aamarvlog

শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। আমার ব্লগ- হাবি জাবি নয়। যোগাযোগ- ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপ- 9434312482 ই-মেইল- [email protected]

Feedback is highly appreciated...

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: