আইসিটি কম্পিউটার শিক্ষকদের ডেপুটেশন চলছেই

আইসিটি কম্পিউটার শিক্ষকদের এজেন্সি মুক্ত করে সরাসরি সরকারের আওতায় আনার দাবিতে বুধবার দুর্গাপুর সার্কেলে ডেপুটেশন দেন ওয়েস্ট বেঙ্গল আইসিটি স্কুল কো-অর্ডিনেটর ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন।

সংগঠন সূত্রে জানানো হয়েছে, দীর্ঘ ৭ বছর ধরে তাঁরা রাজ্যের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্কুলে কম্পিউটার শিক্ষকের দায়িত্ব পালন করে চলেছেন। রাজ্য সরকার যে অর্থ বরাদ্দ করে এজেন্সি থেকে তাঁদের সেই তুলনায় অনেক কম বেতন দেওয়া হয়। তার উপর প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে এ-বছরের ডিসেম্বর মাসে। তাই তাঁরা কাজ হারানোর আশঙ্কায় দিন কাটাচ্ছেন।

সংগঠনের আরও অভিযোগ, ২০১৯ সালের ২ এপ্রিল এজেন্সির কাছে কম্পিউটার শিক্ষকেরা বঞ্চনার প্রতিবাদ করায় তাঁদের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে মামলা দায়ের করা হয়। এখনও তাই নিয়ে আদালতের চক্কর কাটতে হচ্ছে অনেককে।

সংগঠনের পশ্চিম বর্ধমান জেলার পক্ষ থেকে উখড়া, কাঁকসা, বারাবনি সার্কেলে ডেপুটেশন দেওয়ার পর বুধবার দুর্গাপুর সার্কেলে এসআইয়ের কাছে ডেপুটেশন দেওয়া হয়। উপস্থিত ছিলেন প্রায় ১৫ জন আইসিটি কম্পিউটার শিক্ষক। ওয়েস্ট বেঙ্গল আইসিটি স্কুল কো-অর্ডিনেটর ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের পশ্চিম বর্ধমানের জেলা সভাপতি রাজীব অধিকারী, যুগ্ম সম্পাদক সৌরভ সরকার, কনভেনার রঞ্জিত গড়াই সহ উপস্থিত ছিলেন বিমলা মাহাতো, উজ্জল মন্ডল, ববিতা মল্লিক, প্রসেনজিৎ ঘোষ, ঋতুপর্ণা পাল, বিউটি পালোধি প্রমুখ।

এদিন সংগঠনের পক্ষ থেকে অবিলম্বে এজেন্সি থেকে তাঁদের মুক্ত করে সরাসরি সরকারি চুক্তিভিত্তিক ভাবে তাঁদের নিয়োগ করা হোক। উপযুক্ত সাম্মানিক প্রদান করা, কম্পিউটার বিষয়টি সিলেবাসে যুক্ত করার দাবি জানানো হয়।

এদিনই কোচবিহারে এজেন্সি থেকে ছাঁটাই হওয়া ৬০-৭০ জন কম্পিউটার শিক্ষক জেলা শাসকের দফতরের সামনে সকাল থেকে অবস্থান বিক্ষোভ শুরু করে দেন। রাত পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী, তাঁদের সঙ্গে প্রশাসনের তরফে কেউ যোগাযোগ করেননি। তাঁদের বিক্ষোভ চলছে।

aamarvlog

শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। আমার ব্লগ- হাবি জাবি নয়। যোগাযোগ- ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপ- 9434312482 ই-মেইল- [email protected]

Feedback is highly appreciated...

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: