বেনারসের মতো দুর্গাপুরে দামোদরের পাড়ে সন্ধ্যারতি

নদীমাতৃক দেশ। সেই নদীকে অপবিত্র করে দেওয়া হয় প্রতি মুহূর্তে। দুর্গাপুরে দামোদরের পবিত্রতা রক্ষা করতে প্রতি সন্ধ্যায় কাশী, বেনারস, হরিদ্বারের মতো সন্ধ্যারতি শুরু হয়েছে। দুর্গাপুরবাসীর কাছে যা এক দারুণ অভিজ্ঞতা।

দামোদরের বীরভানপুরের বিসর্জন ঘাট বাঁধিয়ে দিয়েছে পুরসভা। প্রতিমা বিসর্জনের সময় পাড়ে দাঁড়িয়ে বহু মানুষ তা উপভোগ করেন। সেই ঘাটেই এখন থেকে প্রতি সন্ধ্যায় স্তোত্রপাঠ এবং সন্ধ্যারতি দর্শন করতে পারবেন তাঁরা। সনাতন রাজ্য ব্রাহ্মণ ট্রাস্টের উদ্যোগে এবং পুরসভার ৪ নম্বর বরোর সহযোগিতায় এই কর্মসূচী নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন বরো চেয়ারম্যান চন্দ্রশেখর বন্দ্যোপাধ্যায়।

অনেকেই বেনারসে গিয়ে সন্ধ্যারতি দেখে আসতে পারেননি। দুর্গাপুরের বীরভানপুর ঘাটে তাঁরা একটা ধারণা অবশ্যই পাবেন। চন্দ্রশোখরবাবু বলেন, দামোদরের পবিত্রতা রক্ষা করতে, দামোদর বাঁচাতে, পরিবেশ রক্ষা করতে কাশী, বেনারস, হরিদ্বারের মতো প্রতি সন্ধ্যায় আরতি হবে এখানে। দুর্গাপুরের অন্যতম দর্শনীয় স্থান হয়ে উঠবে এই ঘাট। বহু মানুষ এখানে আসবেন।

একই সঙ্গে কলকাতার মিলেনিয়াম পার্কের ধাঁচে দামোদরের ধারে পার্ক এবং মুক্তমঞ্চ গড়া হবে। মুক্তমঞ্চে লাইট ও সাউন্ডের ব্যবস্থা থাকবে। দুর্গাপুরের শিল্পীরা সেখানে বিনা পয়সায় অনুষ্ঠান পরিবেশন করতে পারবেন। একটি কমিউনিটি হলও গড়া হবে। পুরসভার অর্থে এবং বিধায়ক এলাকা উন্নয়ন তহবিলের অর্থে এই কাজগুলি হবে বলে জানিয়েছেন চন্দ্রশেখরবাবু। সব মিলিয়ে এই ঘাট এবং সন্ধ্যারতি রাজ্য পর্যটন মানচিত্রে জায়গা করে নেবে বলে মনে করছেন দুর্গাপুরবাসী।  

aamarvlog

শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। আমার ব্লগ- হাবি জাবি নয়। যোগাযোগ- ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপ- 9434312482 ই-মেইল- [email protected]

Feedback is highly appreciated...

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: