Earn money online by blogging. ব্লগ থেকে আয় করার টিপস।

earn money online by blogging. করোনার জেরে এখন ঘরে বসে আয় করার বিষয়টি নিয়ে লক্ষ লক্ষ মানুষ ইন্টারনেটে সার্চ করছেন। নানাভাবে অনলাইনে আয় করা যায়। ভাবলে অবাক হবেন, বহুদিন ধরেই অনেকের এটা ফুলটাইম পেশা হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনলাইনে আয় করার নানা পথ আছে।

Pix of a Lady is working with a Laptop
A Lady is working with a Laptop

তবে আপনি যদি সৃষ্টিশীল হন, এবং লেখালেখির দিকে ঝোঁক থাকে, তাহলে আমার মতে earn money online by blogging. অর্থাৎ Blogging এর মাধ্যমে আয়ের কথা ভাবতেই পারেন। হ্যাঁ, এটা ঘটনা যে ব্লগ লিখে আয় করা প্রথম দিকে খুব একটা সহজ নয়। কিন্তু প্রাথমিক পর্যায়টা পার করে ফেললে অনলাইনে আয়ের জন্য এর থেকে সম্মানজনক এবং কার্যকরী পথ আর নেই। how to write blog and earn money. আসুন খোঁজ নিয়ে দেখি।

Earn online by Blogging. কিন্তু ব্লগিং কিভাবে করবেন?

Earn money online by Blogging. ধাপে ধাপে প্রতিটি পর্যায় আমি তুলে ধরব বিভিন্ন লেখায়। মন দিয়ে পড়ে ফেললেই পরের ধাপটা আপনি নিজেই করে নিতে পারবেন।

how to write blog and earn money. নিজের উপর ভরসা রাখুন। কোনও সমস্যায় পড়লে আমায় জানান। সাধ্যমতো সহযোগিতা করার চেষ্টা করব।

প্রথমেই ব্লগ কিভাবে খুলবেন, সেই টেকনিক্যাল বিষয়ে যাওয়ার আগে আপনাকে আগে ঠিক করতে হবে, আপনি কোন বিষয়ের উপরে ব্লগ খুলবেন। কি তাই তো? ব্লগ খুলে ফেললেন। অথচ কি লিখবেন, খেই খুঁজে পাচ্ছেন না। এর তো কোনও মানে হয় না। তাহলে সবার আগে ঠিক করে নিতে হবে, কি নিয়ে লিখবেন।

কি নিয়ে লিখবেন?

হাজার হাজার বিষয় আছে। কিন্তু আপনি কি নিয়ে লিখবেন, সেটা ঠিক করবেন মূলত তিনটি দিক থেকে।

প্রথমত, আপনাকে খুঁজে বের করতে হবে, বহু মানুষ ইন্টারনেটে কি নিয়ে সার্চ দিচ্ছেন। আপনাকে তেমন কোনও বিষয় নিয়ে লিখতে হবে। আপনি কিছু একটা লিখলেন। কিন্তু সেটা তেমন কারওর দরকার পড়ল না। তাহলে আপনার সেই লেখা কেউ ইন্টারনেটে সার্চ করবে না।

ব্লগে ভিজিটর যদি না আসে, ব্লগের ভিউ যদি না বাড়ে তাহলে আপনার উৎসাহ কমতে থাকবে। আর তাছাড়া, ভবিষ্যতে যখন ব্লগ থেকে আয় করার কথা ভাববেন, তখনও তো ভিজিটর বা ভিউসংখ্যা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে।

দ্বিতীয়ত, যে বিষয় নিয়ে লিখবেন বলে ঠিক করলেন, সেই বিষয়ে আপনার আদৌ দক্ষতা রয়েছে কি না। যেমন, হয়তো আপনি ঠিক করলেন শিক্ষামূলক বিষয় নিয়ে আপনার ব্লগে লেখালিখি করবেন। অথচ আপনি আদতে একজন ভীষণ টেক স্যাভি মানুষ। তাহলে আমি বলব, আপনি ব্লগ লিখুন গ্যাজেটস, কম্পিউটার, স্মার্টফোন ইত্যাদি বিষয় নিয়ে।

আসল কথা হল, যেটা নিয়ে লিখবেন সেই বিষয়ে আপনার পর্যাপ্ত জ্ঞান থাকতে হবে। একই সঙ্গে থাকতে হবে বিষয়টির প্রতি ভালোবাসা। ভালোবাসা থাকলে তবে আপনি সেই ব্যাপারে নতুন নুতন বিষয়ে খোঁজখবর রাখার চেষ্টা করবেন। মনে রাখবেন, আপনি যেটা লিখবেন, সেটা অনেকে পড়বেন। সুতরাং এমন কিছু লিখবেন, যেটা তাঁদের কাজে আসবে। তবেই তো তাঁরা আপনার ব্লগটিকে ভরসা করবেন।

তৃতীয়ত, এমন বিষয় বাছতে হবে, যা থেকে ভবিষ্যতে আয়ের সুযোগ বেশি থাকবে।

কোন বিষয় নিয়ে আপনি ব্লগ খুলবেন তাকে বলে নিশ (niche)। আসুন, প্রথমে ইন্টারনেটে মানুষ কোন কোন বিষয় নিয়ে সার্চ করে থাকেন, প্রাথমিক তালিকায় কোন কোন বিষয় রয়েছে, সেই নিশগুলির  বিষয়ে খোঁজ নেওয়া যাক।

কয়েকটি লাভজনক নিশ

Technology niche। যদি আপনি টেক স্যাভি হন, তাহলে এই নিশ নিয়ে কাজ করতে পারেন। এই নিশ অত্যন্ত জনপ্রিয়। কারণ, আজকের দুনিয়ায় কমবেশি সবাই টেক স্যাভি। প্রায় সবাই জানতে চান, বাজারে নতুন কি স্মার্টফোন এল, কোন গ্যাজেটস এল, বিভিন্ন স্মার্টফোনের তুলনামূলক আলোচনা, কোন ল্যাপটপের কত দাম, স্পেসিফিকেশন কি, এমন আরও অনেক কিছু।

আপনি যদি নিয়মিত এই বিষয়গুলি নিয়ে তথ্যসমৃদ্ধ লেখা লিখতে পারেন, দ্রুত অনেক ভিজিটর পাবেন আপনার ব্লগে। আর কে না জানে, ভিজিটর যত বাড়বে, ভিউ যত বাড়বে, ব্লগ থেকে আয়ের সুযোগও তত বাড়বে। আর একটা কথা বলা দরকার, Technology niche এর ব্লগে দেখানো বিজ্ঞাপনের CPC বেশি।

ভাবছেন CPC আবার কি? চিন্তা করবেন না। তা পরে যথা সময়ে জানিয়ে দেব। এখন দয়া করে ওসব নিয়ে মাথা ঘামাবেন না। তাহলে পথভ্রষ্ট হবেন। অনেকেই ব্লগ শুরুর আগেই ওসব নিয়ে ভাবতে গিয়ে বহু সময় নষ্ট করে ফেলেন। সেই সময় লেখার পিছনে দিলে ততদিনে ব্লগটা কত এগিয়ে যেতে পারত। তাই দয়া করে তাঁদের মতো ভুল আপনি করবেন না। আমার উপরে ভরসা রাখুন। ধাপে ধাপে সব জেনে যাবেন। অন্য কোথাও কিছু খুঁজতে হবে না।

Personal Finance niche। এটা এমন একটি বিষয় যে এর চাহিদা কখনই কমে না। কারণ, প্রত্যেকেই সব সময় চান তাঁদের কষ্টার্জিত অর্থ কিভাবে সুরক্ষিত রাখবেন, কিভাবে তা আরও বেড়ে উঠবে। বাজারে সরকারি ও বেসরকারি বহু ব্যাঙ্ক ও আর্থিক সংস্থা রয়েছে। অনেকেই সেভাবে খোঁজ রাখেন না। ফলে চিরাচরিত স্কিমে বিনিয়োগ করেন। অথচ সেই বিনিয়োগ অন্য কোথাও করলে তিনি হয়তো অনেক বেশি রিটার্ন পেতেন। তাছাড়াও মিউচুয়াল ফান্ড, এলআইসি, ব্যাঙ্ক ঋণ প্রভৃতি নিয়ে কমবেশি সবাই আগ্রহী। তাই, আপনি যদি নিয়মিত এ’বিষয়ে লেখালেখি করতে পারেন, অনেক ভিজিটর আপনার ব্লগে আসবেন। তাঁরা নিজেরা পড়বেন। অন্যদের শেয়ার করবেন। দিন দিন ভিজিটর ও ভিউয়ের সংখ্যা বাড়তেই থাকবে।

এ’বিষয় নিয়ে ইন্টারনেটে প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ মানুষ সার্চ করে থাকেন। তাই আপনার যদি এ’বিষয়ে জ্ঞান থাকে তাহলে এগোতে পারেন। এই নিশ নিয়ে লেখা ব্লগেও ভালো CPC যুক্ত বিজ্ঞাপন পাওয়া যায়। তাছাড়া, ব্লগে লেখা আর্টিকেলে বিভিন্ন financial products এর affiliate marketing এর মাধ্যমেও আয় করার সুযোগ রয়েছে। ভাবছেন affiliate marketing আবার কি? যথা সময়ে জানিয়ে দেব। এখন দয়া করে ওসব নিয়ে সময় নষ্ট করবেন না।

Pix of working with laptop
Earn online by Blogging

সব থেকে সস্তা অথচ সব থেকে বেশি সুবিধাযুক্ত ডোমেইন কিনতে গেলে আপনি Bluehost এর কথা ভাবতে পারেন। ডলারে দাম লেখা থাকলেও আপনি ঘরে বসেই কার্ডের মাধ্যমে সম মূল্যের টাকা প্রদান করে ডোমেইন কিনে নিতে পারবেন। নীচে ক্লিক করুন।

আরও কয়েকটি লাভজনক নিশ

Health and Fitness niche। ইন্টারনেটে প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ মানুষ স্বাস্থ্য সম্পর্কিত বিষয়গুলি নিয়ে যেমন Weight loss, Yoga, Dieting, Herbal remedies, Beauty Tips, Natural Therapies, meditation প্রভৃতি বিষয় নিয়ে সার্চ করে থাকেন। কারণ, সবাই চান, ওজন কমাতে, সুস্থ থাকতে। বাইরে জিমে না গিয়ে কিভাবে ঘরে বসেই সুস্থ থাকা যায়, সেটাই প্রথমে সবাই করার চেষ্টা করেন। তাই প্রথমেই তাঁরা ইন্টারনেটের শরণাপন্ন হন। তাই health & fitness niche বরাবরই খুব জনপ্রিয়। এক্ষেত্রেও বিজ্ঞাপন ও affiliate marketing, দু’ভাবেই আয় করার সুযোগ রয়েছে।

Earn Money Online niche। এই লেখা শুরুই করেছিলাম এই বিষয় দিয়ে। ঘরে বসে কিভাবে অনলাইনে টাকা রোজগার করা যায় তা নিয়ে উৎসাহী প্রায় সবাই। তাই কি কি উপায়ে অনলাইন থেকে আয় করা যায় সে বিষয়ে ব্লগ লিখে দ্রুত সাফল্য আসার সম্ভাবনা রয়েছে। অনেক কম সময়ে ব্লগে হাজার হাজার ট্রাফিক আসার সুযোগ রয়েছে। এই ধরণের ব্লগে বেশি CPC যুক্ত বিজ্ঞাপন দেখানো হয়। তাছাড়া affiliate marketing এর মাধ্যমেও আয় করার সুযোগ রয়েছে। তাই আমার মনে হয়, এই বিষয়ে ব্লগ তৈরি করতে পারলে আপনি লাভবান হবেন।

Food and Recipes niche। আজকাল প্রায় সবার নিউক্লিয়ার ফ্যামিলি। মা-কাকিমা বা শাশুড়ি সঙ্গে থাকেন না। তাই হাতে কলমে রান্না শেখার সুযোগ নেই। কোনও বিশেষ পদ রাঁধার আগে তাই অনেকেই ইন্টারনেটে সার্চ দিয়ে থাকেন। রান্না করতে কি কি উপকরণ লাগবে, কিভাবে রাঁধতে হবে, ইন্টারনেট থেকে সব খুঁজে নেন তাঁরা। পছন্দের রান্না করে খাওয়ান মনের মানুষটিকে। তাই আপনার যদি রান্না সম্পর্কে ভালো আইডিয়া থাকে তাহলে এ’বিষয়ে ব্লগ খুলতে পারেন। এই ধরণের ব্লগে দ্রুত প্রচুর ভিজিটর আসার সম্ভাবনা থাকে। ফলে বিজ্ঞাপন থেকে আয়ের সুযোগও বাড়ে।

Education & learning niche। আপনি যদি পড়াশোনা বা বিশেষ কিছু শেখানোর কথা ভাবেন বা সেই বিষয়ে আপনার বিশেষ জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা থেকে থাকে তাহলে এই নিশ নিয়ে ব্লগ খুলতে পারেন। শিক্ষামূলক কোনও বিষয় নিয়ে অনেকেই এখন ইন্টারনেটে সার্চ দেন। বিশেষ করে করোনার সাম্প্রতিক পরিস্থিতিতে শিক্ষার পুরো বিষয়টিই যেন ক্রমশ অনলাইন নির্ভর হয়ে উঠছে। ফলে এই ধরণের ব্লগের জনপ্রিয়তাও হঠাৎ বেড়ে গিয়েছে। আপনি তাই দেরি না করে একটি tutorial and learning ব্লগ খুলে ফেলতে পারেন।

Tour & Travel niche। আপনি যদি ভ্রমণপিপাষু হন, বেড়াতে পছন্দ করেন তাহলে এই বিষয় নিয়ে ব্লগ খুলতে পারেন। কোনও জায়গা, সেখানে যাওয়ার রুট, যানবাহন, সেখানকার হোটেল বা হোমস্টে, সেখান থেকে আশপাশে কোথায় যাওয়া যায়, ইত্যাদি বিস্তারিত বিষয় নিয়ে যদি নিয়মিত লিখতে পারেন তাহলে দ্রুত জনপ্রিয় হতে পারে ব্লগটি। বেড়াতে বেরোনোর আগে আমরা সেই জায়গাটি নিয়ে সবাই ইন্টারনেটে সার্চ দিয়ে থাকি। আপনার ব্লগটি যদি ভ্রমণপিপাষুদের প্রশ্নের উত্তর দিতে পারে তাহলে বেশিদিন অপেক্ষা করতে হবে না। দ্রুত সাফল্য পাবেন।

সিদ্ধান্ত নিন। দেরি করবেন না।

এছাড়াও শত শত বিষয় আছে ব্লগ লেখার। কয়েকটি জনপ্রিয় ও লাভজনক নিশ সম্পর্কে একটা আইডিয়া দেওয়ার চেষ্টা করেছি এই লেখায়। এবার কোন বিষয় নিয়ে ব্লগ খুলবেন সেই সিদ্ধান্ত নিয়ে নিন। আপনি চাইলে একাধিক নিশ নিয়েও কাজ করতে পারেন, এটা সম্পূর্ণ আপনার উপর নির্ভর করছে। তবে, যে কোনও একটি নিশের উপর লিখলে ইন্টারনেটের সার্চ ইঞ্জিনে আসার সম্ভাবনা বেশি থাকে। ফলে ভিজিটর পাওয়ার সুযোগও বাড়ে।

how to write blog and earn money. আশা করি একটা ধারণা পেয়ে গেলেন। Earn money online by blogging. কিভাবে সম্ভব জেনে গেলেন। যাই হোক, দেরি করবেন না। দু’এক দিনের মধ্যেই সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করে ফেলুন।

পরের লেখায় ‘কিভাবে ব্লগ খুলবেন’ সে বিষয়ে বলব।

কোনও প্রশ্ন থাকলে জানাবেন। সাধ্যমতো চেষ্টা করব উত্তর দিতে।

aamarvlog

শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। আমার ব্লগ- হাবি জাবি নয়। যোগাযোগ- ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপ- 9434312482 ই-মেইল- [email protected]

2 thoughts on “Earn money online by blogging. ব্লগ থেকে আয় করার টিপস।

Feedback is highly appreciated...

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: