সতীপীঠ অট্টহাস

সতীপীঠ অট্টহাস। সপ্তাহান্তে একদিনের জন্য কোথাও ঘুরতে যেতে চান? কেতুগ্রামে সতীপীঠ অট্টহাস ঘুরে আসতে পারেন। লিখছেন সুদীপ পাল।

মাত্র একদিনের ছুটিতে ঘরে বসে থাকতে যদি ইচ্ছা না হয় তাহলে ঘুরে আসতে পারেন সতীপীঠের অন্যতম অট্টহাস। কাটোয়া থেকে কেতুগ্রাম হয়ে ফুটিসাঁকো যাওয়ার রাস্তা ধরে গেলে পৌঁছে যাওয়া যাবে এই মন্দিরে। কাটোয়া থেকে দূরত্ব ২৩ কিলোমিটার। বাসে করে নিরোলে নামলে সেখান থেকে মন্দির যাওয়ার অটো বা টোটো পাওয়া যায়। ট্রেনে এলে গঙ্গাটিকুরি বা আমোদপুর স্টেশনে নেমে নিরোল বাসস্ট্যান্ডে যাওয়া যায়। সেখান থেকে টোটো বা অটোয় চড়ে মন্দির। গঙ্গাটিকুরি স্টেশন থেকে নিরোল বাসস্ট্যান্ড ৭ কিলোমিটার রাস্তা। তাছাড়া রামপুরহাট ফাস্ট প্যাসেঞ্জারে চেপে আমোদপুর স্টেশনে নেমেও এখানে আসা যায়।

সতীপীঠ অট্টহাস। এই মন্দিরের পাশ দিয়ে বয়ে গিয়েছে ঈশাণী নদী। কাছেই শ্মশান। সতীর ঠোঁটের নীচের অংশ পড়েছিল এখানে। এলাকাটি আগে এত বেশি জঙ্গলে ভরা ছিল যে, দিনের বেলাতেও যেতে সাহস পেতেন না অনেকে। তবে এখন খুব সুন্দর ভাবে সাজানো হয়েছে এই মন্দির। দেবী এখানে অধরেশ্বরী নামে পূজিতা। অট্টহাসে দেবীর মূল মূর্তিটি দেবীর অষ্টচামুণ্ডা রূপের অন্যতম দন্তুরা চামুণ্ডা।

জানা গেল, মায়ের প্রধান শিলা ভূগর্ভের কয়েক হাত নিচে চলে গিয়েছে। হাজার বছরেরও বেশি পুরনো এক নথি পাওয়া গিয়েছে, যেখানে আঁকা একটি স্কেচ থেকে এই বিষয়টির প্রমাণ পাওয়া যায়। এছাড়াও সতীপীঠ অট্টহাস মন্দির সংলগ্ন রয়েছে মা রটন্তী কালীর মন্দির। সেই মন্দিরে একসময় বাংলার ডাকাতরা পুজো করত। ওই মন্দিরে নরবলি হতো বলেও শোনা যায়। কয়েক বছর আগেও সেখানে যেতে কাঁদর পেরিয়ে হাঁটা পথ ছাড়া উপায় ছিল না। এখন অবশ্য পরিস্থিতি বদলেছে।

ভক্তদের সুবিধার জন্য তৈরি হয়েছে ভক্ত নিবাস। নিবাসে ভক্তদের থাকা ও খাওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে। এখানে নিরাপত্তার জন্য রয়েছে পুলিশ ক্যাম্প। শক্তিপীঠ হলেও এখানকার প্রধান উৎসব দুর্গাপুজো। দোলযাত্রায় উৎসবের সূচনা হয় চন্ডীপাঠের মধ্য দিয়ে। তারপর সারারাত চলে হরিনাম সংকীর্তন। লোকচক্ষুর অন্তরালে থাকা এই সতীপীঠকে আপনি দর্শন করতে এলে খুঁজে পাবেন গ্রাম্য পরিবেশ আর তার সাথে মিলবে দেবীর আধ্যাত্মিক পরশ।

আরও পড়ুন- বাংলার হারিয়ে যাওয়া এবং হারিয়ে যেতে বসা সুর ও ট্রাডিশনগুলিকে এক জায়গায় এনেছেন লেখক… না পড়লে বহু কিছু মিশ করবেন… 

আরও পড়ুন- পোড়ামাটির দেশ থেকে ঘুরে আসুন, কথা দিচ্ছি, মন ভালো হয়ে যাবে

 

By aamarvlog

শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। আমার ব্লগ- হাবি জাবি নয়। যোগাযোগ- ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপ- 9434312482 ই-মেইল- [email protected]

2 thoughts on “একদিনের ছুটিতে বেড়িয়ে আসুন সতীপীঠ অট্টহাস”

Feedback is highly appreciated...

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: