করোনার জেরে স্কুলের সিলেবাসে ৩০ শতাংশ কাটছাঁট ওড়িশায়, কি ভাবছে আমাদের রাজ্য?

সিলেবাসে কাটছাঁট শুরু হয়ে গেল করোনার জেরে।

ওড়িশা সরকার ঘোষণা করেছে, চলতি শিক্ষাবর্ষে প্রথম থেকে দ্বাদশ শ্রেণী পর্যন্ত সিলেবাসের ৩০ শতাংশ ছেঁটে দেওয়া হয়েছে। আমাদের রাজ্যে এখনও এমন কোনও চিন্তাভাবনার ইঙ্গিত মেলেনি ঠিকই। তবে দীর্ঘদিন এই পরিস্থিতি চলতে থাকলে সিলেবাস শেষ করা মুশকিল হবে। সেক্ষেত্রে সিলেবাস কমানো ছাড়া গতি থাকবে না বলে মনে করছেন শিক্ষাবিদদের একাংশ।

ওড়িশার বিদ্যালয় ও জনশিক্ষা দফতরের মন্ত্রী সমীর রঞ্জন দাস বুধবার জানিয়েছেন, স্টেট কাউন্সিল অফ এডুকেশন্যাল রিসার্চ অ্যান্ড ট্রেনিং (SCERT), বোর্ড অফ সেকেন্ডারি এডুকেশন (BSE), কাউন্সিল অফ হায়ার সেকেন্ডারি এডুকেশন (CHSE) এর পরামর্শ মেনে, বিশেষজ্ঞ কমিটির অনুমোদন নিয়ে সিলেবাসে ৩০ শতাংশ কাটছাঁট করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। নতুন সিলেবাস সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইটগুলিতে আপলোড করে দেওয়া হবে।

আমাদের রাজ্যে অনলাইনে পঠন-পাঠন চালানো হচ্ছে লকডাউনের শুরু থেকেই। কিন্তু স্মার্টফোন না থাকা বা নেট প্যাক কেনার পয়সা না থাকায় বহু পড়ুয়া পড়াশোনার সুযোগ পাচ্ছে না।

তাই স্মার্টফোন বা ডিজিটাল ডিভাইস না থাকায় যে পড়ুয়ারা পড়াশোনার সুযোগ পাচ্ছে না, তাদের সংখ্যা নির্দিষ্ট করে বিকল্প ব্যবস্থা গ্রহণের চিন্তাভাবনা শুরু করেছে শিক্ষা দফতর।

তা সত্বেও শিক্ষাবিদদের একাংশ মনে করছেন, চলতি বছরে এখন পর্যন্ত যা পরিস্থিতি তাতে সিলেবাস না কমালে শিক্ষাবর্ষ শেষ করা সম্ভব হবে না। যদিও রাজ্য সরকার এ-ব্যাপারে এখনও কোনও ইঙ্গিত দেয়নি।

aamarvlog

শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। আমার ব্লগ- হাবি জাবি নয়। যোগাযোগ- ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপ- 9434312482 ই-মেইল- [email protected]

Feedback is highly appreciated...

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: