মামাকে দিয়ে মাকে গুলি করালো ছেলে, শুটআউট কান্ডে এমনই চাঞ্চল্যকর তথ্য

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করে রাখুন বিভিন্ন আপডেট পাওয়ার জন্য।দুর্গাপুর দর্পণ, দুর্গাপুর, ১৪ মে ২০২১: মাকে খুনের চেষ্টার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে ছেলেকে। এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে দুর্গাপুরের নিউ টাউনশিপ থানার এমএএমসি টাউনশিপ সংলগ্ন সুভাষপল্লিতে। শুক্রবার অভিযুক্ত বিক্রম উপাধ্যায়কে দুর্গাপুর আদালতে তোলা হলে তাকে আট দিনের পুলিশ হেফাজতে পাঠানো হয়। পুলিশ তাকে জেরা করছে।

বিক্রম উপাধ্যায়

গুলিবিদ্ধ মহিলার নাম ববিতা উপাধ্যায়। কয়েকমাস আগে তাঁর স্বামী পেশায় ট্রাক চালক বিজয় উপাধ্যায় মারা যান। এরপর ট্রাকের খালাসি সুভাষ রায়ের সঙ্গে প্রণয়ের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন তিনি। মাস দেড়েক আগে তাঁদের বিয়ে হয়। দিদির দ্বিতীয় বিয়ে মানতে চায়নি ভাই আরজু। অন্যদিকে, মায়ের দ্বিতীয় বিয়ে মানতে চায়নি বিক্রমও। দু’জনে মিলে জোট বাঁধে। ববিতার সঙ্গে অশান্তি শুরু হয় দু’জনের।

বৃহস্পতিবার দুপুরে পর পর দুটি পটকা ফাটার মতো শব্দ পেয়ে বেরিয়ে আসেন পড়শিরা। তাঁরা দেখেন, রক্তাক্ত ও গুলিবিদ্ধ অবস্থায় ঘর থেকে বাইরে বেরিয়ে আসছেন ববিতা। কে গুলি চালিয়েছে জিজ্ঞাসা করলে তিনি আরজুর নাম করেন। তবে আরজুকে সেখানে আর খুঁজে পাওয়া যায়নি। তার আগেই সে এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে।

ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ আসে। জখম ববিতাকে প্রথমে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে বিধাননগরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করে। রাতে গ্রেফতার করা হয় ববিতার ছেলে বিক্রমকে। পুলিশের দাবি, বিক্রম ও আরজু, দু’জনে মিলে নেশা করে ববিতাকে খুনের ছক কষে। এরপর আরজু আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে চলে যায় ববিতার বাড়ি এবং গুলি চালায়। পুলিশ জানিয়েছে, বিক্রমকে জেরা করে আরজুর খোঁজ পাওয়ার চেষ্টা চলছে।

aamarvlog

শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। আমার ব্লগ- হাবি জাবি নয়। যোগাযোগ- ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপ- 9434312482 ই-মেইল- [email protected]

Feedback is highly appreciated...

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: