সাহিত্য আলপনা-র শারদীয়া সংখ্যা প্রকাশ উপলক্ষে সাহিত্য সম্মেলন

রবিবার ১৩ সেপ্টেম্বর সাহিত্য আলপনা পত্রিকার শারদীয়া সংখ্যা-১৪২৭ প্রকাশিত হল দুর্গাপুরের ট্রাঙ্ক রোডের চিত্তব্রত মজুমদার ভবনে।

এদিন সাহিত্য আলপনা পত্রিকার ৭ম বর্ষের শারদ সংখ্যা ছাড়াও প্রকাশিত হয় শিল্প ও সাহিত্য পত্রিকার ভাদ্র সংখ্যা, মানববন্ধন অবধূতপুরীর একটি আধ্যাত্মিক গ্রন্থ, প্রভাত সরকারের কিশোর গল্প। এছাড়া মৈত্রেয়ী ব্যানার্জী, মরিয়ম আলম, অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়, শান্তনু ভট্টাচার্য, পূর্ণিমা মন্ডলের কাব্যগ্রন্থ প্রকাশ করা হয়। এছাড়াও রাজীব ঘাঁটী সম্পাদিত তিনটি খন্ডে প্রকাশিত হয় অক্ষরের বন্দী বাগান।

এদিনের অনুষ্ঠানে পত্রিকার সম্পাদক রাজীব ঘাঁটী তাঁর উদ্বোধনী বক্তব্যে বলেন, অতিমারীর এই সময়ে খুব কষ্ট করেও আমরা শারদ সংখ্যা প্রকাশ করতে পেরেছি, প্রত্যেকবারের মত মহালয়ার আগেই। অনুষ্ঠানে সদ্য প্রয়াত সাহিত্যিক শান্তিময় বন্দ্যোপাধ্যায়কে স্মরণ করা হয়।

উদ্বোধনী সঙ্গীত পরিবেশন করেন কবি অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়। সভাপতিত্ব করেন আশিসকুমার রায়। প্রধান অতিথি ছিলেন তাপস চট্টরাজ। বিশেষ অতিথি ছিলেন নুরুল হক।  পত্রিকার পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেওয়া হয় রাস্ট্রপতি পুরস্কার প্রাপ্ত শিক্ষক ডঃ কলিমুল হক এবং শিক্ষারত্ন কাজী নিজামউদ্দিনকে। উপস্থিত ছিলেন পত্রিকার সভাপতি আলপনা ঘাঁটী, উপদেষ্টা সুবোধ চন্দ্র ঘাঁটী, সহ সভাপতি বিজয় চট্টরাজ প্রমুখ।

এদিনের সাহিত্য সম্মেলনে কবিতা পাঠ, গান ও আবৃত্তিতে অংশ নেন আসানসোল ও দুর্গাপর, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, বীরভূম থেকে আসা কবি-সাহিত্যিকরা। মনমোহন কর্মকার, উৎপল মুখোপাধ্যায়, আশিস কুমার নন্দী, তাপস চট্টরাজ, প্রণতি বন্দোপাধ্যায়, কাকলী মান্না, লাকী চট্টরাজ, শিবাণী ঘোষ, অলক্তিকা চক্রবর্তী, কস্তুরী দত্ত, শিপ্রা ব্যানার্জী, রঘুনাথ সিনহা, যাদব রুইদাস, দিলীপ মজুমদার, সোনালী দাস বক্সী, স্মিতা ঘোষ, পায়েল পোল্যে কাঁড়ার, সুবোধ ঘোষ, মানব চন্দ্র মন্ডল প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন শান্তনু ভট্টাচার্য, উমাশঙ্কর সেন ও রাজীব ঘাঁটী। যাবতীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে এদিনের অনুষ্ঠান আয়োজিত হয় বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা।

aamarvlog

শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। আমার ব্লগ- হাবি জাবি নয়। যোগাযোগ- ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপ- 9434312482 ই-মেইল- [email protected]

Feedback is highly appreciated...

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: