বিষাক্ত

রুক্ষ্ম ভাষা কংক্রিট দেওয়াল ভেঙে দেয় ভাঙা ধ্বংসস্তুপ থেকে বেরিয়ে আসে শীর্ণ কঙ্কাল। ওঁত পেতে থাকে হিংস্র জন্তু ছোবল মেরে কেড়ে নিতে চায় ভালোত্বকে। বিকেল শীর্ণকায়, দুপুর বিষণ্ণ, দিন উত্তপ্ত রাতের অন্ধকারে ছিনিয়ে নেওয়ার হাওয়া। বিষাক্ত কংক্রিটের ভাষা, নোংরা সভ্যতার গন্ধ- অনেক ভালোর মধ্যে কুৎসিত জীবের আনাগোণা তপ্ত পৃথিবীতে ক্লান্তির রেশ, আঁশটে গন্ধ বড্ড বেশি।

দেবলীনা

সন্ধ্যার শেষে স্নিগ্ধ শিশির ভিজিয়ে গেল ঘাসের ডগা ঘাসফুলের গন্ধে এলোমেলা বাতাস বয়ে যায় উদাস মনের পাশ দিয়ে। কাশের রঙ জানিয়ে যায়, আবার দেবী আসছে ঢাকের তালে আবার কোনো কিশোরীর মন বদ্ধ হবে কিশোরের চোখে! হয়তো কোনো কিশোরীর আঁচল থাকবে রঙিন শরতের আকাশ আবার সাজবে নতুন করে। চারিদিকে শূন্য হাহাকার জানিয়ে যাবে- বিনা চিকিৎসায় তোমার … Read more

error: Content is protected !!