তৃণমূল ও আইএনটিটিইউসি, পদ ছাড়তে ‘রেডি’ দুই জেলা সভাপতি-ই

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করে রাখুন বিভিন্ন আপডেট পাওয়ার জন্য।

দুর্গাপুরঃ তৃণমূলের জেলা সভাপতি জিতেন্দ্র তিওয়ারি। আইএনটিটিইউসির জেলা সভাপতি বিশ্বনাথ পাড়িয়াল। বুধবার দুর্গাপুরের গ্রাফাইট কারখানার সামনে সভা থেকে দু-জনেই প্রকাশ্য সভায় জানিয়ে দিলেন, পদ ছাড়তে তাঁরা তৈরি।

জেলা সভাপতি বললেন, এক মিনিটে ছেড়ে দেব পদ। শ্রমিক সংগঠনের সভাপতি বললেন, দরকার হলে বিকালের মধ্যে পদ ছেড়ে দেব। স্থানীয়দের নিয়োগের দাবিতে দুর্গাপুরের গ্রাফাইটের সামনে আইএনটিটিইউসির ডাকা সভায় কার্যত দুই নেতা দলের বিরুদ্ধেই বিষোদ্গার করে গেলেন টানা।

জিতেন্দ্র তিওয়ারি বললেন, আমাকে ১৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত কোনও দলীয় কর্মসূচীতে থাকতে বারণ করা হয়েছে কলকাতা থেকে। তা সত্বেও আমি এসেছি। কারণ, বিশ্বনাথ পাড়িয়ালকে আগেই কথা দিয়েছিলাম। এজন্য সভাপতির পদ ছাড়তে হতে পারে বিকালের মধ্যে। আমার এক মিনিটও লাগবে না। সব তৈরি করা আছে। ভয়ে ভয়ে কতদিন থাকা যায়! আর নয়। পশ্চিম বর্ধমানের নেতাদের আর দমিয়ে রাখা যাবে না। বললেই, চলে যাব। কিন্তু আসানসোল-দুর্গাপুরের মানুষের জন্য কাজ করে যাব।

আরও পড়ুন- মানুষকে আর কোনও প্রতিশ্রুতি দিতে চান না জিতেন্দ্র তিওয়ারি, কেন? 

বিশ্বনাথ পাড়িয়াল বললেন, কলকাতা থেকে ফোন করে আমাকে এই মিটিং ক্যানসেল করতে বলা হয়েছে। নিয়োগের নামে তোলাবাজি করে কারখানায় লুঠ চলছে। আমায় ট্রেড ইউনিয়নের দায়িত্বে দেওয়া হয়েছে। অথচ যখনই এসবের প্রতিবাদে কিছু করতে যাই, যাদের স্বার্থে ঘা লাগে তারা কলকাতার নেতাদের দিয়ে আমার কর্মসূচী বাতিল করতে বলে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে যাঁরা ঘিরে রেখেছেন তাঁরা মিথ্যা কথা বলে দলটাকে শেষ করে দিতে চাইছে। আমি ছেডে় যাব। কিন্তু লড়াই জারি থাকবে।

বিধানসভা নির্বাচনের আর পাঁচ মাসও বাকি নেই। তার আগে পশ্চিম বর্ধমান জেলায় রাজ্যের শাসক দলের এই টানাপড়েন কবে মেটে সেটাই এখন দেখার!

(খবর ভালো লাগলে শেয়ার করবেন)

https://durgapur24x7.com/confidential-letter-published-by-people-of-own-party-alleged-jitendra-tiwari/

 

aamarvlog

শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। আমার ব্লগ- হাবি জাবি নয়। যোগাযোগ- ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপ- 9434312482 ই-মেইল- [email protected]

Feedback is highly appreciated...

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: