ডাইনি অপবাদে গ্রামছাড়া তরুণীই এখন গ্রামের করোনা রোগীদের প্রধান ভরসা

এখানে ক্লিক করে আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করে রাখুন বিভিন্ন আপডেট পাওয়ার জন্য।

দুর্গাপুর দর্পণ ডেস্ক, ৬ জুন ২০২১: একদিন ডাইনি অপবাদ দিয়ে পুরো পরিবারের সঙ্গে গ্রামছাড়া করা হয়েছিল তাঁকেও। শান্তিনিকেতন সংলগ্ন বাঁধ নবগ্রামের সেই আদিবাসী তরুণী চুড়কি হাঁসদা এখন গ্রামের করোনা রোগীদের প্রধান ভরসা হয়ে দাঁড়িয়েছেন। করোনা রোগীদের বাড়িতে অক্সিজেন পৌঁছে দেওয়া, অবস্থার অবনতি হলে রোগীকে হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়া, সব করছেন তিনিই।

সদা প্রস্তুত চুড়কি হাঁসদা

বাঁধ নবগ্রামে মা-বাবা ও চার ভাইবোনকে নিয়ে থাকেন চুড়কি হাঁসদা। আগে বাড়ি ছিল ইলামবাজার ব্লকের গোপালনগর গ্রামে। ২০০৩ সালে ডাইনি অপবাদ দিয়ে গ্রাম থেকে বের করে দেওয়া হয় পরিবারটিকে।  নানা জায়গা ঘুরে শেষ পর্যন্ত পরিবারটি আশ্রয় নেয় বাঁধ নবগ্রামে। সামান্য জমিজমা রয়েছে। বাবার সঙ্গে চুড়কিও চাষের কাজে হাত লাগান।

চুড়কি গ্রাজুয়েশন করেছেন। এক সময় একটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার হয়ে কাজ করতেন তিনি। এখন সেই সংস্থার কাছ থেকে একটি গাড়ি নিয়ে গ্রামে গ্রামে ঘুরে করোনা আক্রান্তদের বাড়িতে অক্সিজেন পৌঁছে দিচ্ছেন। শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছেন। সংসারে চরম আর্থিক অনটন। তা সত্বেও মানুষের পাশে দাঁড়াতে চুড়কির উদ্যোগের কোনও খামতি নেই। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এই আদিবাসী তরুণী এখন পুরো এলাকার মানুষের কাছে ‘আইডল’।

aamarvlog

শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। আমার ব্লগ- হাবি জাবি নয়। যোগাযোগ- ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপ- 9434312482 ই-মেইল- [email protected]

Feedback is highly appreciated...

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: