বি‌শ্বনাথ পাড়িয়াল কি তৃণমূলের টিকিট পাবেন? জল্পনা শুরু

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করে রাখুন বিভিন্ন আপডেট পাওয়ার জন্য। 

দুর্গাপুর দর্পণ, দুর্গাপুরঃ বিধানসভা ভোটের নির্ঘন্ট প্রকাশ করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। তারপরেই প্রার্থী নিয়ে চর্চা শুরু হয়ে গিয়েছে। দুর্গাপুর পশ্চিম কেন্দ্রের বিধায়ক বিশ্বনাথ পাড়িয়াল কি তৃণমূলের টিকিট পাবেন? শুরু হয়ে গিয়েছে জল্পনা।

এই জল্পনার কারণ বিশ্বনাথ নিজেই। তিনি ২০১৬ সালের বিধানসভা ভোটের ঠিক আগে তৃণমূল ছেড়ে কংগ্রেসে যোগ দিয়ে বাম-কংগ্রেস জোটের প্রার্থী হন। তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দুর্গাপুরের গান্ধী মোড়ের জনসভা থেকে বিশ্বনাথকে ‘বিশ্বাসঘাতক’ বলেন। বিশ্বনাথ হারিয়ে দেন তৃণমূল প্রার্থী অপূর্ব মুখার্জীকে।

কিছুদিনের মধ্যেই ফের তৃণমূলের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা বাড়তে শুরু করে বিশ্বনাথের। আইএনটিটিইউসির জেলা সভাপতি করা হয় তাঁকে। বিধানসভা ভোটের জন্য তিনটি বিধানসভার কনভেনারও করা হয়েছে তাঁকে। তা সত্বেও দলীয় নেতৃত্বের একাংশের বিরুদ্ধে লাগাতার ক্ষোভ উগড়ে দিতে থাকেন তিনি। এমনকি তিনি বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন বলেও একাধিকবার জল্পনা ছড়িয়েছে। যদিও তিনি শেষ পর্যন্ত তৃণমূলেই রয়ে গিয়েছেন।

বিধানসভা নির্বাচনের আগে কিছুদিন ধরে তিনি সক্রিয়তা বাড়িয়েছেন বলে দলের একাংশের মত। তিনি শুধু দুর্গাপুরে নয়, তিনি চলে যাচ্ছেন বেলঘড়িয়ায়। সেখানে ৫ টাকায় ভরপেট খাবারের ক্যানটিন উদ্বোধনে মদন মিত্রের সঙ্গী ছিলেন তিনি। মদন মিত্র তাঁকে দলের গুরুত্বপূর্ণ নেতা হিসাবে উল্লেখ করেন।

শনিবার দুর্গাপুরে বিশ্বনাথ সাইকেল মিছিল বের করেন। পেট্রল, ডিজেল, রান্নার গ্যাসের দাম বৃদ্ধির প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় সরকারের বিরুদ্ধে এদিন সরব হন তিনি। এই ইস্যুতে দুর্গাপুরে সাইকেল মিছিল এটাই প্রথম। তাই মিছিল ঘিরে উচ্ছ্বাস নজরে এসেছে।

তবে এতকিছুর পরেও বিশ্বনাথকে তৃণমূল আদৌ টিকিট দেবে কি না তা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে। আগের বারের নির্বাচনে তৎকালীন বিধায়ক এবং দুর্গাপুরের মেয়র অপূর্ব মুখোপাধ্যায়ের কাজকর্মে অখুশি ছিলেন শহরের বড় অংশের মানুষ। তার উপর দুর্গাপুরের দুটি আসনেই বাম-কংগ্রেস জোটের প্রভাব কাজে দিয়েছিল। শেষ পর্যন্ত জিতে গিয়েছিলেন বিশ্বনাথ। কিন্তু তৃণমূলের টিকিটে বিশ্বনাথ দাঁড়ালে শুধু যে তাঁকে বাম-কংগ্রেস বা বিজেপির বিরুদ্ধে লড়তে হবে এমন নয়, তাঁকে লড়তে হবে নিজের দলের একাংশের বিরুদ্ধেও। এতদিন ধরে তিনি যাঁদের বিরুদ্ধে প্রকাশ্যেই বিষোদ্গার করে এসেছেন তাঁরা নির্বাচনের সময় অন্তর্ঘাত করবেন না তার কোনও নিশ্চয়তা নেই। সব মিলিয়ে এবার দুর্গাপুর পশ্চিম কেন্দ্রে বিশ্বনাথ পাড়িয়ালের টিকিট পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েই গিয়েছে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক ওয়াকিবহাল মহল।

aamarvlog

শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। আমার ব্লগ- হাবি জাবি নয়। যোগাযোগ- ফোন ও হোয়াটসঅ্যাপ- 9434312482 ই-মেইল- [email protected]

Feedback is highly appreciated...

error: Content is protected !!
%d bloggers like this: